খেলা

ক্রসবার আর হ্যান্ডবলে লিভারপুলের ড্র, বড়দিনের আগে শীর্ষে আর্সেনাল

নগর খবর ডেস্ক : ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে ম্যাচের পরই লিভারপুল কোচ ইউর্গেন ক্লপ ক্লাব সমর্থকদের অ্যানফিল্ডে আরও জোরাল সমর্থনের জন্য আহ্বান করেছিলেন। সেই অনুরোধই যেন রাখা হলো আর্সেনালের বিপক্ষে ম্যাচে। পুরো ৯০ মিনিট অ্যানফিল্ড মাতিয়ে রাখলেন অল রেড সমর্থকরা। আর তাতে কোচ ক্লপের মুখেও ফুটল হাসি।

তবে ম্যাচের পর সেই হাসিটা কিছুটা হলেও রং হারিয়েছে। পুরো ম্যাচে আধিপত্য দেখালেও শেষ পর্যন্ত ড্রতেই সন্তুষ্ট হতে হলো তাকে। অ্যানফিল্ডে টানা দুই ড্রয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষে ওঠা হয়নি লিভারপুলের।

বড়দিনের আগে ইংলিশ ফুটবল লিয়ে সবচেয়ে বড় এক ম্যাচ ছিল শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) রাতে। লিভারপুলের ঘরের মাঠে আর্সেনালের বিপক্ষে সেই ম্যাচে কিছুটা নিজেদের দুর্ভাগা ভাবতেই পারে তারা। প্রথমার্ধে মার্টিন ওডেগার্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি আবেদন ফিরিয়ে দিয়েছেন রেফারি। আর পরে ট্রেন্ট আলেকজান্ডার আর্নল্ডের শট ফিরে এসেছে ক্রসবার থেকে।

এমন দুর্ভাগ্যের দিনে ড্র হয়েছে দুই দলের ক্লাসিক এই ম্যাচ। আর তাতে বড়দিনের আগে টেবিলের শীর্ষস্থান নিশ্চিত করল মিকেল আর্তেতার শিষ্যরা। এই ম্যাচের পর চল্লিশ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরেই থাকছে আর্সেনাল। আর এক পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে লিভারপুল।

অ্যানফিল্ডে দর্শক নড়ে চড়ে বসার আগে লিড পেয়ে যায় যায় গানার্সরা। ওডেগার্ডের পাস থেকে মাথা ছুঁয়ে স্বাগতিক সমর্থকদের হতাশায় ডোবান আর্সেনালের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল।

এর চার মিনিটের মাথায় গোল হজম করে পুরোদমে আক্রমণ শুরু করে অলরেড শিবির। তবে খুব বেশি সুবিধা করে ওঠা হয়নি। একাধিকবার আক্রমণে সুযোগ পেয়েও নষ্ট করেছেন কোডি গাকপো। আবার মাঝমাঠ থেকেও বলের জোগান আসেনি সেই অর্থে।

তবুও ম্যাচে ফিরতে সময় লাগেনি লিভারপুলের। আলেকজান্ডার আর্নল্ডের দুর্দান্ত পাস থেকে বল পেয়ে যান মোহামেদ সালাহ। একজনকে পাশ কাটিয়ে ডি-বক্সের দূরের কোণ থেকে অসাধারণ এক গোল করেছেন এই মিশরীয় ফরোয়ার্ড। দুই দল টানেলে ফেরে ম্যাচ সমতায় রেখে।

দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ২০ মিনিট পুরোপুরি ছিল স্বাগতিকদের দখলে। ম্যাচে আগে এককভাবে আধিপত্য দেখিয়েছে ক্লপের শিষ্যরা। গোলের সবচেয়ে বড় সুযোগও পায় তারা। আর্সেনালের কর্নার থেকে কাউন্টার অ্যাটাকে একাই বল নিয়ে যান সালাহ। পাসও দেন ঠিকভাবেই। তবে আর্নল্ডের সেই শট ফিরে আসে ক্রসবার থেকে।

শেষদিকে এডি এনকেটিয়া নামলে আক্রমণের ধার অনেকটাই বেড়ে যায় আর্সেনালের। যদিও সেখান থেকে গোল আর পাওয়া হয়নি। লিভারপুলও বারবার ফিরে এসেছে ব্যর্থ হয়ে। ম্যাচ শেষ হয় সেই ১-১ গোলেই।

ইপিএলে ১৮ ম্যাচ খেলে ১২টি জয় চারটি ড্র ও দুটি হারে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল। সমান ম্যাচে ১১ জয়ে ছয় জয় ও এক হারে ৩৯ পয়েন্ট নয়ে দ্বিতীয় স্থানে লিভারপুল।

Back to top button