খেলা

পেলের জার্সিকে সাময়িক অবসরে পাঠাচ্ছে সান্তোস

নগর খবর ডেস্ক : নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাওয়ার পরেই ক্লাবের সেরা খেলোয়াড়কে সম্মান জানানোর উদ্যোগ নিয়েছে ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী ক্লাব সান্তোস। সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় পেলের প্রায় পুরো ক্যারিয়ার পার হয়েছে সান্তোসের সাদা জার্সিতে। এবার দ্বিতীয় বিভাগে নামার পরেই পেলেকে স্মরণ করে নিজেদের ১০ নম্বর জার্সিটা তুলে রাখছে সান্তোস।

ফুটবলে অবশ্য কিংবদন্তি খেলোয়াড়দের সম্মান জানিয়ে জার্সি নম্বর তুলে রাখার রীতি নতুন কিছু নয়। ম্যারাডোনাকে যেমন সম্মান জানিয়ে ১০ নম্বর জার্সি তুলে রেখেছে নাপোলি। এসি মিলান ফ্রাংকো বারেসিকে স্মরণ করে ৬ নম্বর জার্সিকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে। আবার মালদিনি পরিবারের স্মরণে ৩ নম্বর জার্সিটাও অবসরে পাঠিয়েছে তারা। সিজার মালদিনি এবং পাওলো মালদিনির পর একই পরিবারের আর কেউ এলেই কেবল পাবেন এসি মিলানের ৩ নম্বর জার্সি।

তবে এমন কিছু করে দেখায়নি সান্তোস। তার শেষদিকের ক্লাব নিউইয়র্ক কসমস পেলেকে এমন সম্মান দেখালেও, সান্তোস এসবের ধার ধারেনি। তবে এবার দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাওয়ার পরেই ১০ নম্বর জার্সি উঠিয়ে রাখছে ব্রাজিলের ক্লাবটি। অবশ্য সেটা সাময়িক সময়ের জন্য। যতদিন পর্যন্ত তারা প্রথম বিভাগে ফিরে আসবে না, ততদিন সান্তোসে দশ নম্বর জার্সিতে দেখা যাবে না কাউকে।

সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যায় তারা। লিগে ১৭তম স্থান পেয়ে সিরি-আ থেকে সিরি-বিতে নেমে যায় দলটি। দলের এমন অবস্থায় গাড়ি ভাঙ্গচুরও করেছেন অনেক সমর্থকই। এরইমাঝে ক্লাবের পক্ষ থেকে ঘোষণা এসেছে, প্রথম বিভাগে না ফেরা পর্যন্ত পেলের স্মৃতিবিজড়িত ১০ নম্বর জার্সিকে সাময়িকভাবে ব্যবহার করা হবে না।

 

সান্তোসের নবনির্বাচিত ক্লাব প্রেসিডেন্ট মার্সেলো তেজেইরা ঘোষণা দিয়েছেন, ‘যতদিন আমরা প্রথম বিভাগে না ফিরছি ততদিন পেলের ১০ নম্বর জার্সি আমরা ব্যবহার করব না। এই বছর ব্রাজিলের ফুটবল লিগকে পেলের নামে নামকরণ করা হয়েছিল। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করব প্রথম বিভাগে ফেরার, আর এটিই ১০ নম্বর জার্সির জন্য উপযুক্ত জায়গা।’

 

উল্লেখ্য, চলতি বছর ব্রাজিলের ফুটবল লিগ কিংবদন্তি ফুঠবলার পেলের স্মরণে আয়োজন করার কথা রয়েছে। লিগের প্রতিটি ম্যাচের দশম মিনিটে পেলেকে স্মরণ করা হবে। সান্তোসও এবার নিজেদের পক্ষ থেকে পেলেকে সম্মান জানানোর সিদ্ধান্ত নিলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button