লালমনিরহাটসারাদেশ

স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক সোনালী ব্যংকের এমডি সাংবাদিকের উপর আবারো ক্ষিপ্ত

জেলা প্রতিনিধি : প্রার্থীতা বাতিল নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লেখালিখি করায় সাংবাদিকদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল প্রতীক) ও সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডি আতাউর রহমান প্রধান। এর আগেও আতাউর রহমান প্রধান সংবাদের ভাষা পরিবর্তনসহ সাংবাদিকদের নিয়ে নানা ধরণের বক্তব্য দেন। এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন সাংবাদিক মহল।

মঙ্গলবার বিকেলে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চত্তরে সাংবাদিকদের সাক্ষাৎকার দেয়ার সময় তিনি সাংবাদিকের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিকদের আতাউর রহমান প্রধান বলেন, আপনারা আমার প্রার্থীতা গতকালকে বাতিল করে দিয়েছেন। আমার প্রার্থীতা কি বাতিল হয়েছে? তাহলে কালকে কেন এমন নিউজ করলেন। আপনাদের কিছু নিউজ বহু লোকের রাতের ঘুম হারাম করে দিয়েছেন বলে সাংবাদিকের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়ায় আতাউর রহমান প্রধান। এ সময় সিনিয়র সাংবাদিক আসাদুজ্জামান সাজু এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তার সংবাদ বর্জন করে চলে যান।

জানা গেছে, মঙ্গলবার লালমনিরহাট এক আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল প্রতীক) ও সোনালী ব্যাংকের সাবেক এমডি আতাউর রহমান প্রধানের প্রার্থীতা নিয়ে আদালতে একটি রায় প্রকাশ হয়। সেই রায়কে কেন্দ্র করে সোমবার বিভিন্ন গণমাধ্যম একটি সংবাদ প্রকাশ করে। সেই সংবাদের বরাত দিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লেখালিখি করেন। আর সেই লেখালিখির কারনে সাংবাদিকদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন আতাউর রহমান প্রধান।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের লালমনিরহাট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান সাজু বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখ জনক। আমি সাথে সাথেই এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছি।

এ বিষয়ে জানতে লালমনিরহাট এক আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল) আতাউর রহমান প্রধানের মোবাইল ০১৭১৪০০৬৬৩৩ নম্বরে কয়েকবার কল করা হলেও তিনি কলটি রিসিভ করেননি।

Back to top button