আন্তর্জাতিক

হামাসের আত্মসমর্পণের ভুয়া ভিডিও তৈরি করেছে ইসরায়েল

নগর খবর ডেস্ক : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার উত্তরাঞ্চলে হামাসের যোদ্ধারা অস্ত্র ফেলে দিয়ে আত্মসমর্পণ করছেন— এমন কয়েকটি ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়েছে। বিশেষ করে ইসরায়েলে এ ভিডিওগুলো ব্যাপকভাবে শেয়ার হচ্ছে।

তবে হামাসের যোদ্ধাদের আত্মসমর্পণের এ ভিডিওর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

 

রোববার (১০ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে বিবিসি বলেছে, একই ব্যক্তির (যোদ্ধার) আত্মসমর্পণের দুটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ইসরায়েল। এতে করে এটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

তবে হামাসের যোদ্ধাদের আত্মসমর্পণের এ ভিডিওর সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

 

রোববার (১০ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে বিবিসি বলেছে, একই ব্যক্তির (যোদ্ধার) আত্মসমর্পণের দুটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ইসরায়েল। এতে করে এটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

প্রথম ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে— এক ব্যক্তি শুধুমাত্র আন্ডারওয়্যার এবং স্যান্ডেল পরে দাঁড়িয়ে আছেন। তার ডান হাতে একটি রাইফেল; আর বা হাতে একটি ম্যাগাজিন রয়েছে। ইসরায়েলি সেনাদের নির্দেশনা অনুযায়ী, তিনি রাইফেল ও ম্যাগাজিন দুটোই রেখে দিচ্ছেন।

অপর একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, সেই একই ব্যক্তি রাইফেল ও ম্যাগাজিন হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। কিন্তু দ্বিতীয় ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তার বা হাতে রাইফল; আর ডান হাতে ম্যাগাজিন।

দুটো ভিডিওতেই দেখা যাচ্ছে, রোডের কাছে অসংখ্য ফিলিস্তিনি দাঁড়িয়ে আছেন। যাদের সবাইকে নগ্ন করে ফেলা হয়েছে। ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছে জাবালিয়া শরণার্থী ক্যাম্পের বেঈত লাহিয়ার জাতিসংঘের পরিচালিত একটি স্কুলের সামনে।

 

একই ব্যক্তির কেন দুইবার ভিডিও ধারণ করা হলো এ নিয়েই প্রশ্ন উঠেছে। এ ব্যাপারে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল বিবিসি। তারা বিবিসির কাছে দাবি করেছে, হামাসের যোদ্ধারা আত্মসমর্পণ করছে— সে বিষয়টি দেখাতে দুইবার ভিডিও ধারণ করা হয়েছে।

 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া অপর এক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, দখলদার এক ইসরায়েলি সেনা ফিলিস্তিনিদের একটি দোকান ভাঙচুর করছেন। এসময় তারা এ নিয়ে মজা করছিল।

 

এ ব্যাপারেও ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনীর কাছে প্রশ্ন করেছিল বিবিসি। জবাবে তারা বলেছে, ওই সেনার আচরণ অসঙ্গতিপূর্ণ এবং প্রতিরক্ষা বাহিনীর নীতির পরিপন্থি এবং তারা এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button