খেলা

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে দোয়া চাইলেন শান্ত

নগর খবর ডেস্ক : ৪৪ রানের ব্যবধানে হেরে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচেও ভাগ্যের চাকা ঘুরেনি। টানা হারে ইতোমধ্যেই সিরিজ খুইয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। তাই শেষ ম্যাচের আগে বাংলাদেশের লক্ষ্য হোয়াইটওয়াশ এড়ানো।

৪৪ রানের ব্যবধানে হেরে ওয়ানডে সিরিজ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচেও ভাগ্যের চাকা ঘুরেনি। টানা হারে ইতোমধ্যেই সিরিজ খুইয়েছে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। তাই শেষ ম্যাচের আগে বাংলাদেশের লক্ষ্য হোয়াইটওয়াশ এড়ানো।

সাকিব আল হাসান, তাসকিন আহমেদের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের ছাড়া নিউজিল্যান্ডে খেলছে বাংলাদেশ। শান্ত মনে করেন দলে অভিজ্ঞতার ঘটতি আছে। তবে জুনিয়রদের পারফরম্যান্সে খুশি তিনি।

শান্ত বলেন, ‘প্রথমত আমার কাছে মনে হয় এই দলটা আগের দল থেকে একটু নতুন। সেই তুলনায় আমি বলবো বেশ কিছু ভালো জিনিস ছিল আমাদের-আমি একটু আগেই যেটা বললাম রিশাদের বোলিং, শরিফুল নতুন বলে যেরকম বোলিং করছে। হ্যাঁ, ২০০৭ থেকে এখন পর্যন্ত লম্বা সময় চিন্তা করলে এই জায়গায় আরেকটু কিভাবে একটা দল হিসেবে আমরা খেলতে পারি, এটা ভাবতে হবে।’
হোয়াইটওয়াশ এড়াতে শান্ত চাইলেন দোয়া, ‘ব্যক্তিগত দুই-একটা পারফর্মম্যান্স হচ্ছে কিন্তু দল হিসেবে ওই পারফর্মম্যান্সটা আসছে না। দেখা গেল সৌম্য একা ম্যাচটা ক্যারি করল, মাঝখানে ওরকম কেউ রান করেনি। আমার কাছে মনে হয় এই ধরণের কন্ডিশনে বড় জুটি প্রয়োজন। ওই জিনিসটাই করার চেষ্টা করব আগামীকালের ম্যাচে। আর যেটা বললেন আরেকটা হোয়াইটওয়াশের সামনে, দোয়া করেন যেন ওই জিনিসটা না হয়।’

নেপিয়ারে নিজের ব্যাটিং নিয়ে শান্ত বলেন, ‘এই কন্ডিশনে আগেও খেলেছি, টেস্ট ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা আছে। আমার মনে হয় পরিকল্পনা আরেকটু বেটার হতে পারতো আমার ব্যাটিং নিয়ে। কিন্তু দুইটা ইনিংস গিয়েছে আমি চিন্তা করছি না কারণ একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে প্রতিদিন রান করব এমন না। যেদিন রান করব সেদিন যেন ইনিংসটা ইমপ্যাক্টফুল হয়না।
 

 

 

 

 

 

Back to top button