মশার উপদ্রব রাজশাহী নগরবাসী ভোগান্তি চরম মাত্রায় » নগর খবর
  1. jahid.raj24@gmail.com : Jahid :
  2. mamun@gmail.com : mamun :
  3. ms2120524@gmail.com : Mridul :
  4. nogorkhobor@gmail.com : nogorkhobor@admin :
  5. parish@gmail.com : parish :
  6. parvaje01842@gmail.com : নগর ডেস্কঃ :
  7. rumonahamed442@gmail.com : Rumon Ahamed : Rumon Ahamed
  8. sagor.hosaain2@gmail.com : sagor.hasaain :
মশার উপদ্রব রাজশাহী নগরবাসী ভোগান্তি চরম মাত্রায় » নগর খবর
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২০ পূর্বাহ্ন
নগর খবর শিরোনামঃ

মশার উপদ্রব রাজশাহী নগরবাসী ভোগান্তি চরম মাত্রায়

  • নগর ডেস্ক
    নগর খবর
    আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৯ মার্চ, ২০২১

রাজশাহী নগর ডেস্কঃ রাজশাহী নগরীতে মশার উপদ্রব বেড়ে গেছে। আর সে কারণে নগরবাসীর যে ভোগান্তি চরম মাত্রায় এসে পৌচেছে।
রাজশাহীর নগরবাসী বলেন, নগরীর ভেতরে যেসব ডোবা নালা ঝোপঝাড় রয়েছে সেগুলো নিয়মিত পরিষ্কার না করার কারণে এই মশা উপদ্রব বেড়েই চলেছে। মশার উপদ্রব বাড়ার কারনে নগরবাসীর স্বাভাবিক কাজকর্মেও কিন্তু ব্যাঘাত ঘটছে। বিশেষ করে ছোট বাচ্চা বা যেসব শিক্ষার্থী আছে তারা কিন্তু ঠিক মতো পড়াশোনা করতে পারছেন না এই মশার উপদ্রব বেড়ে যাওয়ার কারণে। এই মশার হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য অনেকেই কয়েল বা ইস্প্রে করেও কিন্তু কোন ধরনের প্রতিকার পাচ্ছেন না।
রাজশাহী নগরীর পুরোটা জুড়েই এবং উপজেলা গুলোতেও কিন্তু একই মশার উপদ্রব।
রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন থেকে বলা হচ্ছে তারা মশা নির্ধনের লক্ষ্যে অচিরেই কাজ শুরু করবেন এবং এরই মধ্যে বেশ কিছু যন্ত্রপাতি ও কীটনাশক কিন্তু কিনেছেন।
বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, ডেঙ্গু ম্যালেরিয়া সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার যে সম্ভাবনা মশার উপদ্রব বেড়ে যাওয়ার কারণে। সেই সম্ভাবনা কিন্তু চরম মাত্রায় দেখা দিয়েছে এবং এতে করেও অনেকে আতঙ্কের মধ্যে দিন যাপন করছেন।

এদিকে দেখা যাচ্ছে কিছু কিছু নগরবাসী দিনের বেলায়ও মশারির টানিয়ে ঘরের মধ্যে বসবাস করছেন। একই অবস্থা রাতের বেলায় অনেকেই কিন্তু কয়েল বা মশারির টাঙিয়েও রেহাই পাচ্ছেন না মশার উপদ্রব থেকে। এমন একটি পরিস্থিতি বিস্তার করছে রাজশাহী পুরোটা জুড়েই। সব মিলিয়ে আসলে নগরবাসী বলছেন যে অচিরেই যদি কার্যকর কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা না যায় তাহলে তাদের যে দুর্ভোগ সেটি কিন্তু আরও কয়েক গুণ বৃদ্ধি পাবে।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জান লিটন বলছেন, এই মৌসুমে তিন কোটি টাকার যন্ত্রপাতি এবং দশটি ফগার মেশিন কিনেছেন, মশক নিধনের জন্য এবং সেগুলো অচিরেই তারা কাজ শুরু করবেন, তাহলে মশার উপদ্রব অনেকটাই কমে আসবে।


এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, nogorkhobor@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন NogorKhobor আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর

আমাদের লাইক পেজ

Facebook Pagelike Widget