রাজশাহী বাঘায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অনশন » নগর খবর
  1. jahid.raj24@gmail.com : Jahid :
  2. mamun@gmail.com : mamun :
  3. ms2120524@gmail.com : Mridul :
  4. nogorkhobor@gmail.com : nogorkhobor@admin :
  5. parish@gmail.com : parish :
  6. parvaje01842@gmail.com : নগর ডেস্কঃ :
  7. rumonahamed442@gmail.com : Rumon Ahamed : Rumon Ahamed
  8. sagor.hosaain2@gmail.com : sagor.hasaain :
রাজশাহী বাঘায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অনশন » নগর খবর
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১১ অপরাহ্ন
নগর খবর শিরোনামঃ

রাজশাহী বাঘায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অনশন

  • নগর ডেস্ক
    নগর খবর
    আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ মার্চ, ২০২১

রাজশাহী নগর ডেস্কঃ বাঘায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে এক কলেজছাত্রী অনশন শুরু করেছেন। বুধবার বিকাল ৪টা থেকে প্রেমিক আবদুল্লার বাড়ির গেটে কলেজছাত্রী অবস্থান নিয়েছেন।

বিয়ে না করা পর্যন্ত তিনি ওই বাড়ি থেকে যাবেন না এবং প্রয়োজনে আত্মহত্যা করবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৬ মাস আগে কলেজ পড়ুয়া ওই ছাত্রীর সঙ্গে গৌরাঙ্গপুর গ্রামের সাজদার রহমানের ছেলে আবদুল্লার প্রেমের সম্পর্ক হয়। এ সম্পর্কের কারণে তাদের সাথে বেশ কয়েকবার দেখা সাক্ষাৎ হয়েছে। কিন্তু আবদুল্লা তাকে কিছু না জানিয়ে আগামী শুক্রবার অন্যত্র বিয়ে করার জন্য দিন ঠিক করেছেন।

এ বিয়ের দিন ঠিক হওয়ার খবর কলেজছাত্রী জানতে পেরে আবদুল্লার বাড়ির গেটে অনশন শুরু করেছেন। তারপর থেকে এলাকার মানুষ তার অনশন দেখার জন্য বাড়ির গেটে ভিড় করছেন।

এ সময় কলেজছাত্রী বলেন, আমাকে বিয়ে না করা পর্যন্ত এখানে থাকব। বিয়ে না করলে প্রয়োজনে আত্মহত্যা করব।

এ বিষয়ে পাকুড়িয়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার লোকমান হোসেন বলেন, চেয়ারম্যান আমাকে বিষয়টি প্রথম অবগত করেছেন। আমি বাইরে ছিলাম। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে আবদুল্লার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

পাকুড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম সরকার জানান, ঘটনাটি জানার পর ওই ওয়ার্ডের মেম্বারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তবে আবদুল্লা সেনাবাহিনীর একজন সদস্য বলে শুনেছি।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, আমাদের কাছে অভিযোগ করলেও ব্যবস্থা নিতাম। কিন্তু আমাদের কিছু না জানিয়ে ছেলের বাড়িতে অনশন শুরু করেছে বলে শুনেছি।


এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, nogorkhobor@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন NogorKhobor আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর

আমাদের লাইক পেজ

Facebook Pagelike Widget