টিকা নেওয়ার পর আক্রান্তের হার কম, এগিয়ে অক্সফোর্ড » নগর খবর
  1. jahid.raj24@gmail.com : Jahid :
  2. mamun@gmail.com : mamun :
  3. ms2120524@gmail.com : Mridul :
  4. nogorkhobor@gmail.com : nogorkhobor@admin :
  5. parish@gmail.com : parish :
  6. parvaje01842@gmail.com : নগর ডেস্কঃ :
  7. rumonahamed442@gmail.com : Rumon Ahamed : Rumon Ahamed
  8. sagor.hosaain2@gmail.com : sagor.hasaain :
টিকা নেওয়ার পর আক্রান্তের হার কম, এগিয়ে অক্সফোর্ড » নগর খবর
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৪৪ অপরাহ্ন
নগর খবর শিরোনামঃ

টিকা নেওয়ার পর আক্রান্তের হার কম, এগিয়ে অক্সফোর্ড

  • নগর ডেস্ক
    নগর খবর
    আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১

করোনা মোকাবিলায় ভারতে টিকা নেওয়ার পর কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বেশ কম। এজন্য টিকাকরণের হারকে ‘অত্যন্ত সন্তোষজনক’ বলে দাবি করল মোদি সরকার। বুধবার (২১ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক পরিসংখ্যান দেখিয়ে জানায়, কোভিড টিকা নেওয়ার পরেও সংক্রমণের শিকার হচ্ছেন মানুষ। তবে সেই হার খুবই কম। সামগ্রিক পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, ১০ হাজারের মধ্যে গড়ে মাত্র ৪ জন সংক্রমিত হচ্ছেন।

বুধবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ সংস্থা ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর) মহাপরিচালক বলরাম ভার্গব জানিয়েছেন, করোনা টিকা নেওয়ার পরেও যারা সংক্রমণের শিকার হচ্ছেন, তাদের ক্ষেত্রে অতিমারির ‘প্রাণঘাতী’ রূপ নেওয়ার সম্ভাবনা প্রায় নেই।

ভারতের সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, টিকাকরণ সংক্রান্ত তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিনের প্রথম টিকা দেওয়ার পরে ৯৩ লাখ ৫৬ হাজার ৪৩৬ জনের মধ্যে ৪ হাজার ২০৮ জন করোনাভাইরাস সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। দ্বিতীয় টিকা নেওয়ার পরে ১৭ লাখ ৩৭ হাজার ১৭৮ জনের মধ্যে ৬৯৫ জনের ক্ষেত্রে কোভিড টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

একইভাবে, অক্সফোর্ড এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার সহায়তায় সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার তৈরি কোভিশিল্ডের ক্ষেত্রে প্রথম টিকা নেওয়ার পর ১০ কোটি ৩ লাখ ২ হাজার ৭৫৪ জনের মধ্যে ১৭ হাজার ১৪৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। যা প্রথম ডোজ টিকা গ্রহীতার দশমিক শূন্য ২ শতাংশ। দ্বিতীয় টিকা নেওয়া ১ কোটি ৫৭ লাখ ৩২ হাজার ৭৫৪ জনের মধ্যে সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ৫ হাজার ১৪ জন। শতাংশের হিসাবে এ হার দশমিক শূন্য ৩।

মানবদেহে পরীক্ষার (হিউম্যান ক্লিনিকাল ট্রায়াল) পর ভারত বায়োটেক এবং অ্যাস্ট্রাজেনিকার পক্ষে তাদের টিকা ‘১০০ শতাংশ সফল’ বলে দাবি করা হয়েছিল। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেছে দু’টি টিকা নেওয়ার পরেও প্রতি ১০ হাজারে কোভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে শূন্য দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ এবং কোভিশিল্ডের ক্ষেত্রে প্রায় শূন্য দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ মানুষ সংক্রমণের শিকার।

বলরাম ভরগাভা বলেন, ‘প্রতি ১০ হাজার টিকা গ্রহীতার মধ্যে ২ থেকে ৪ জনের নতুন করে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এই সংখ্যা খুবই নগণ্য। তাই আতঙ্কিত হওয়ার মতো কিছু নেই।’


এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, nogorkhobor@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন NogorKhobor আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর

আমাদের লাইক পেজ

Facebook Pagelike Widget