লালমনিরহাটের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নারীকে মারপিট, থানায় অভিযোগ » নগর খবর
  1. jahid.raj24@gmail.com : Jahid :
  2. mamun@gmail.com : mamun :
  3. ms2120524@gmail.com : Mridul :
  4. nogorkhobor@gmail.com : nogorkhobor@admin :
  5. parish@gmail.com : parish :
  6. parvaje01842@gmail.com : নগর ডেস্কঃ :
  7. rumonahamed442@gmail.com : Rumon Ahamed : Rumon Ahamed
  8. sagor.hosaain2@gmail.com : sagor.hasaain :
লালমনিরহাটের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নারীকে মারপিট, থানায় অভিযোগ » নগর খবর
বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫৬ অপরাহ্ন
নগর খবর শিরোনামঃ

লালমনিরহাটের ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নারীকে মারপিট, থানায় অভিযোগ

  • নগর ডেস্ক
    নগর খবর
    আপডেটের সময় : বুধবার, ৩ নভেম্বর, ২০২১

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে এক নারীকে বেদম মারপিট করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন, উক্ত নারী বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন, থানায় অভিযোগ।

প্রাপ্ত অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার রমনীগঞ্জ গ্রামের খছমুদ্দিন এর সাথে একই এলাকার মন্তাজ উদ্দিনের ছেলে মোজাম্মেল হোসেনের জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ৩১ অক্টোবর খছমুদ্দিন তার স্ত্রী আছমা বেগমসহ পাকা ধান কাটতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন খছমুদ্দিন ও তার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি মার ডাং ও ফুলা জগম করে।

পরে এলাকাবাসী খছমুদ্দিনের স্ত্রী আছমা বেগমকে উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করায়। অবস্থার বেগতিক দেখায় কর্তব্যরত চিকিৎসক আছমা বেগম (৫০) কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

খছমুদ্দিন বলেন, ৫৭৪ নং খতিয়ানের ২০ দাগে ১ একর ৮৩ শতক জমি নিয়ে এ বিরোধ। উক্ত জমি আমি আমার পৈত্তিকসূত্রে প্রাপ্ত হয়ে আমন ধানের চাষাবাদ করি এবং ধান পাকায় কাটতে গেলে মোজাম্মেল গং আমার ও স্ত্রীর উপর হামলা চালায়। আমি বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মোজাম্মেল হোসেন বলেন,আমাদের চাষাবাদকৃত জমির ধান কাটতে গিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, nogorkhobor@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন NogorKhobor আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর

আমাদের লাইক পেজ

Facebook Pagelike Widget