রাজশাহীর পবা উপজেলার পৌর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে » নগর খবর
  1. jahid.raj24@gmail.com : Jahid :
  2. mamun@gmail.com : mamun :
  3. ms2120524@gmail.com : Mridul :
  4. nogorkhobor@gmail.com : nogorkhobor@admin :
  5. parish@gmail.com : parish :
  6. parvaje01842@gmail.com : নগর ডেস্কঃ :
  7. rumonahamed442@gmail.com : Rumon Ahamed : Rumon Ahamed
  8. sagor.hosaain2@gmail.com : sagor.hasaain :
রাজশাহীর পবা উপজেলার পৌর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে » নগর খবর
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন
নগর খবর শিরোনামঃ

রাজশাহীর পবা উপজেলার পৌর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

  • নগর ডেস্ক
    নগর খবর
    আপডেটের সময় : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

দেশের ২৪ পৌরসভার মধ্যে রাজশাহীর পবা উপজেলার কাটাখালী ও পুঠিয়া উপজেলার সদর পৌরসভা নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে।

আজ সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এ দু’টি পৌরসভায় এবারই প্রথম ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হচ্ছে।

সকাল থেকেই ভোট দেওয়ার জন্য কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যে নারী ভোটারদের সংখ্যা বেশি। পৌর নির্বাচনকে ঘিরে রাজশাহীর এ দুই পৌরসভা এলাকায় এখন পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ২৫ হাজার। সেখানকার ৯টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। রাজশাহীর কাটাখালী পৌরসভা ৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৮টি কেন্দ্রই গুরুত্বপূর্ণ। ফলে গুরুত্ব বিবেচনায় এগুলোতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এগুলোতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

এদিকে, রাজশাহীর পুঠিয়া পৌরসভায় মোট ৯টি কেন্দ্রে ১৬ হাজার ৬৩৩ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। সেখানে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে রবিউল ইসলাম রবি, বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে আল মামুন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নারিকেল গাছ প্রতীকে গোলাম আজম নয়ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়াও পুঠিয়া পৌরসভায় এবার কাউন্সিলর পদে ৩৬ জন এবং নারী কাউন্সিলর পদে ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

রাজশাহী জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ভোটকেন্দ্রে স্বাভাবিক পরিস্থিতি বজায় রাখতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সুষ্ঠু, সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ, র‌্যাব, আনসার-ভিডিপির সদস্য ছাড়াও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত নিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে ভোটগ্রহণ শুরুর পর সকাল ৯টা পর্যন্ত কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

সূত্র: বাংলার জনপদ


এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, nogorkhobor@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন NogorKhobor আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

এই বিভাগের আরও খবর

আমাদের লাইক পেজ

Facebook Pagelike Widget