খবর

কারাগারের অধীনে হাসপাতালে থেকেই জুম মিটিং করতেন রফিকুল আমিন

কারাগারের অধীনে হাসপাতালে থাকা ডেসটিনি-২০০০ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমিনের মোবাইল ফোন ও জুম মিটিংয়ে অংশ নেয়ার ঘটনায় ১৩ কারারক্ষীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়েছে। এছাড়া সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে চার কারারক্ষীকে। শুক্রবার ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

সিনিয়র জেল সুপার সুভাষ কুমার জানান, ডেসটিনির রফিকুল আমিনের জুম মিটিংয়ের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১৩ কারারক্ষীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা ও চার কারারক্ষীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বরখাস্ত হওয়া চারজন হলেন প্রধান কারারক্ষী ইউনুস আলী মোল্লা, প্রধান কারারক্ষী মীর বদিউজ্জামান, প্রধান কারারক্ষী আব্দুস সালাম ও প্রধান কারারক্ষী আনোয়ার হোসেন।

এছাড়া যাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে, তারা হলেন সহ-প্রধান কারারক্ষী জসিম উদ্দিন, সাইদুল হক খান বিল্লাল হোসেন, ইব্রাহিম খলিল, বরকত উল্লাহ, এনামুল হক, সরোয়ার হোসেন, কারারক্ষী মোজাম্মেল হক, জাহিদুল ইসলাম, আমির হোসেন, কামরুল ইসলাম, শাকিল মিয়া ও নবীন কারারক্ষী আব্দুল আলীম।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কারা অধিদফতরের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে পরবর্তী সাত কার্যদিবসে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। ঢাকা বিভাগের ডিআইজি-প্রিজন্স তৌহিদুল ইসলামকে প্রধান করে এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন মুন্সিগঞ্জের জেল সুপার নুরুন্নবী ভুইয়া এবং নারায়ণগঞ্জের জেলার শাহ রফিকুল ইসলাম।

সুত্র:

সম্পরকিত খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button