মুন্সীগঞ্জসারাদেশ

তাবিজ দেওয়ার কথা বলে সে আমাকে ডেকে নেয়, এরপর…

নগর খবর ডেস্ক : মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে তাবিজ দেওয়ার কথা বলে ননদ-ভাবীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় আসামি তরুণ তালুকদারকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

গতকাল বিকেলে তরুণ তালুকদারকে আদালতে হাজির করা হলে মুন্সীগঞ্জ আমলী আদালত-৬ এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট জশিতা ইসলাম ওই আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

 

গত শনিবার রাতে নির্যাতিতা কিশোরীর (১৫) বাবা অভিযুক্ত তরুণ তালুকদারের বিরুদ্ধে লৌহজং থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কিশোরীর দিনমজুর বাবা গাইবান্ধা জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলার বাসিন্দা। দীর্ঘদিন স্বপরিবারে লৌহজং উপজেলার কালুরগাঁও গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকেন। ঘটনার দিন কাজ শেষে বাড়িতে এসে জানতে পারেন বাড়ির পাশের দোকানদার আলাউদ্দিন তালুকদারের ছেলে তরুণ তালুকদার তার কিশোরী মেয়ে ও তার ভাইয়ের ছেলের স্ত্রীকে নির্যাতনের চেষ্টা করেছে।

 

ভুক্তভোগী কিশোরী বলেন, অভিযুক্ত তরুণ তালুকদারকে আমি মামা বলে ডাকি। তাবিজ ও ‘চিরুণী পড়া’ এনে দেওয়ার কথা বলে সে আমাকে ডেকে নেয়। এরপর আমার মুখ চেপে ধরে দোকানের ভেতরে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। আমাকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। আমাকে বেঁধে আমার ভাবীকে ডেকে নিয়ে আসে।

ওই কিশোরীর নির্যাতিতা ভাবী (১৮) বলেন, আমাকে তরুণ মামা দোকানের সামনে ডেকে নিয়ে যাওয়ার পরে জোর করে দোকানের ভেতর নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয়। সেখানে গিয়ে আমার ননদকে বিবস্ত্র ও মুখ বাধা অবস্থায় দেখতে পাই। তরুণ তালুকদার আমাকে জাপ্টে ধরে?

 

ওই নারী আরও জানান, তার ননদ এক ছেলেকে পছন্দ করেন, কিন্তু ছেলেটি তাকে পছন্দ করে না। ওই ছেলে কিশোরীকে পছন্দ করবে এ আশ্বাস দিয়ে তরুণের কাছে তাবিজ আছে বলে তার ননদকে দোকানের ভিতর নিয়ে যায়। এরপর সেখানে তাকে বিবস্ত্র করে কাপড় লুকিয়ে রাখে। আমাকে ডেকে নিয়েও শ্লীলতাহানির চেষ্টা করলে আমি তরুণের হাতে কামড় দেই ও চিৎকার করি, তখন সে পালিয়ে যায়।

 

ঘটনার বিষয়ে গাওদিয়া ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার মোশারফ হোসেন বেপারী বলেন, ঘটনার একদিন পর বিষয়টি জানতে পেরেছি। শনিবার বিকেল ৩টার দিকে তরুণ তার মুদি ও মুড়ি বিক্রির দোকানে নিয়ে এক কিশোরী ও তার ভাবিকে ধষর্নের চেষ্টা করে।

 

তিনি আরও বলেন, এ গ্রামে এর আগেও ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে, যা এলাকার বড় এক নেতার আশ্রয়ে ধামাচাপা দেওয়া হয়েছে। গআমরা চাই এসব জঘন্য কাজের উপযুক্ত বিচারক হোক।

এ বিষয়ে লৌহজং থানার এস আই আলাউদ্দিন, তরুণ তালুকদারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অভিযোগ আনা হয়েছে।

লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি খন্দকার ইমাম হোসেন বলেন,  আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশের প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Back to top button